1. admin@betnanews24.com : Betna :
চাঁদে বসবাসের জন্য মানুষ পাঠানো হচ্ছে : নাসা - বেতনা নিউজ ২৪
বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০৩:৩৫ অপরাহ্ন

চাঁদে বসবাসের জন্য মানুষ পাঠানো হচ্ছে : নাসা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক,
  • প্রকাশিত : রবিবার, ২৮ আগস্ট, ২০২২
  • ৪৮ বার পঠিত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক,

 

সম্প্রতি চাঁদের বুকে আবারো মানুষ পাঠানো হবে। বহুল প্রতীক্ষিত ‘আর্টেমিস’ যুগের কার্যক্রম শুরু হচ্ছে সোমবার (২৯ আগস্ট)। স্থানীয় সময় সকাল ৮টা ৩৩ মিনিটে ফ্লোরিডার কেনেডি স্পেস সেন্টার থেকে মহাশূন্যের উদ্দেশে উড্ডয়ন করবে আর্টেমিস-ওয়ান। কোনো কারণে বিলম্বিত হলে, বিকল্প তারিখ রাখা হয়েছে ২ ও ৫ সেপ্টেম্বর।
স্পেস ডট কম’র এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ৪২ দিনের জন্য মহাশূন্যে যাবে নাসার এ যাবতকালের সবচেয়ে শক্তিশালী রকেট। ওপরে আছে ওরিয়ন ক্যাপসুল। ক্ষণ গণনা চলছে ফ্লোরিডার কেপ ক্যানাভেরালের, কেনেডি স্পেস সেন্টারে। গন্তব্য পৃথিবীর একমাত্র উপগ্রহ চাঁদ। যার সাফল্যের পথ ধরেই, ৫ দশকের বেশি সময় পর, আবার চাঁদের বুকে পদচিহ্ন আঁকবে মানুষ।
তিন ধাপের মিশনের প্রথমটি যাচ্ছে মানুষ ছাড়াই। চাঁদকে প্রদক্ষিণ শেষে, ৪২ দিন পর ফিরে আসবে পৃথিবীতে। সফল হলে, তৃতীয় ধাপে চাঁদের বুকে নামবে মানুষ। উচ্চাভিলাষী প্রকল্পের জন্য বিশেষ ব্যবস্থায় তৈরি হয়েছে, ৩২২ ফুট লম্বা মেগা রকেট। ৯৩ বিলিয়ন ডলারের বিশাল বাজেট থাকায়, এর সাফল্যের দিকে নজর সবার।
নাসার অ্যাডমিনিস্ট্রেটর বিল নেলসন বলেন, আমাদের রকেট আর স্পেস ক্রাফট মানুষসহ যাত্রার জন্য তৈরি। তবে যতদূর সম্ভব নিরাপত্তা নিশ্চিতে আর্টেমিসের পরীক্ষামূলক মিশন হবে এটি। অধীর আগ্রহে অভিযান শুরুর অপেক্ষায় আছি। অর্ধ শতকের বেশি সময় পর আবারও চাঁদের মাটিতে মানুষের পা পড়বে।
১৯৬৯ সালে অ্যাপোলো মিশনের মাধ্যমে প্রথম চাঁদে মানুষ পাঠায় নাসা। ১২ মার্কিন নভোচারী চাঁদের বুকে পা রাখার পর, ১৯৭২ সালে পর্দা নামে চন্দ্র বিজয়ের ধারাবাহিক অভিযানের। এরপর মহাকাশ গবেষণা অনেক অগ্রসর হলেও, চাঁদে আর মানুষের পা পড়েনি। দীর্ঘ ৫ দশক বিরতির পর, নতুন চন্দ্র অভিযানের লক্ষ্য অনেকটাই আলাদা। এবার কেবল চন্দ্র জয়ের রোমাঞ্চ নয়, স্বপ্ন চাঁদের বুকে বসতি গড়ার।
নভোচারী স্টান লাভ বলেন, অ্যাপোলো মিশনের উদ্দেশ্য ছিল রুশদের তুলনায় মার্কিন আধিপত্য প্রদর্শন। চাঁদের বুকে যুক্তরাষ্ট্রের পতাকা টানানোর মধ্য দিয়েই তা সফল হয়েছে। এখন আমরা স্থায়ীভাবে চাঁদে উপস্থিতি নিশ্চিত করতে চাই। কখনো হয়তো সেখানে শিল্প কারখানাও গড়ে উঠতে পারে। অনেকটা মঙ্গলকে নিয়ে পরিকল্পনার মতোই।
প্রাচীন গ্রিক রূপকথায়, চন্দ্রদেবতা অ্যাপোলোর যমজ বোন ছিলেন আর্টেমিস। অ্যাপোলোর পথ ধরে, তাই, আর্টেমিসের নামেই, রাখা হয়েছে নাসার নতুন চন্দ্র মিশনের নাম। পরিকল্পনা অনুসারে, আগামী বছর যাবে আর্টেমিস-টু মিশন। আর ২০২৫ সালে আর্টেমিস-থ্রি অভিযানে চাঁদে যাবে মানুষ। নাসা নিশ্চিত করেছে, দুই নভোচারীর একজন হবেন নারী।
বেতনা নিউজ ২৪ /আ/ডে/

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা